ভিক্ষুক পরিবারকে নির্যাতনের মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তার ঘটনাস্থল পরিদর্শন

প্রকাশিত: ৩:৪৭ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার বাক্তা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের প্রভাবশালী দারোগা পরিবার কর্তৃক ভিক্ষুক পরিবারকে নির্যাতনের ঘটনায় ভিক্ষুক আলাউদ্দিন বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৩৪৯/২০২০ইং। বিজ্ঞ আদালত উক্ত মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্বভার প্রদান করেন ফুলবাড়িয়া উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তাকে। আদালতের নির্দেশে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ঘটিকায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা রত্না।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা বাদী, বিবাদী, স্বাক্ষীগণের জবানবন্দি রেকর্ড করেন এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের কথা মনোযোগ সহকারে শুনেন। তদন্তকালে বাদীর পক্ষে যথেষ্ট স্বাক্ষ-প্রমাণ উপস্থাপন করলেও বিবাদীগণ তাদের বক্তব্যের স্বপক্ষে কোন স্বাক্ষী উপস্থিত করতে পারেন নি।

এ সময় তদন্তকারী কর্মকর্তা বলেন, নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থেই আমি সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বাদী, বিবাদী, স্বাক্ষীগণের জবানবন্দি রেকর্ড করি এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের বক্তব্য শুনি। মামলার প্রয়োজনে অধিকতর তদন্ত করা হবে।

এ সময় বাক্তা ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ফজলুল হক মাখন, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও ফুলখড়ি পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক আলহাজ্ব মো. নূরুল ইসলাম খান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মঞ্জুরুল হক, সাবেক সভাপতি মো. আব্দুস ছালাম মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান সোহেল, আওয়ামী লীগ নেতা, মো. জাহাঙ্গীর আলম, ইউপি সদস্য মো. সুরুজ বাঙ্গালী, মো. মোফাজ্জল হোসেন, মো. রুবেল মিয়া ও অন্যান্য মেম্বারগণ সহ সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। বক্তাগণ বলেন, একজন দারোগার পরোক্ষ ইন্ধনে দারোগা পরিবার ঈদের দিনে খাবার থেকে তুলে নিয়ে সেলিম সহ অসহায় ভিক্ষুক পরিবারকে শারীরিক নির্যাতন করা এবং কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮জন শিক্ষার্থীর নামে মামলা দিয়ে হয়রানী করাটা খুবই দু:খজনক ও ন্যক্কারজনক ঘটনা।

উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ তাদের সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে উভয় পক্ষকে সমঝোতার শান্তি প্রস্তাবও দেন এবং ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে উভয় পক্ষকে দ্রুত সময়ে সমাধানে বসার জন্য অনুরোধ জানান। তদন্ত কার্যক্রমে আনসার ভিডিপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশগণ সার্বিক সহযোগিতা করেন। পরে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানান স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তির পক্ষে সাবেক ইউপি সদস্য ও শিক্ষক আলহাজ্ব মো. আব্দুল কাদের মাস্টার।