কালভার্টের মুখ বন্ধ করায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

প্রকাশিত: ৯:০০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২০

মোঃ আঃ জব্বার: ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ার কুশমাইল টেকিপাড়ায় হুবিদ্ধা বিলে কালভার্টের মুখ বন্ধ করে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে আবাদ যোগ্য জমির ফসল নষ্ট করার অপরাধে ফিসারী মালিক মোশারফ হোসেনকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

সোমবার (১০ আগষ্ট) দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে উপজেলার কুশমাইল টেকিপাড়া হুবিদ্ধা বিলে পাড়ে এক ভ্রাম্যমান আদালতে দন্ডবিধির ১৮৬০ এর ২৯১ ধারামোতাবেক এই অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ.টি.এম আরিফ।

এসময় ফুলবাড়ীয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) দিলরুবা ইসলাম ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শামছুল হক, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুর রহমান সহ ভোক্তভূগীগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে আদালতের নির্দেশে কালভার্টের বাঁধ কেঁটে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করা হয়। স্থানীয় লোকজন জানায়, কুশমাইল গ্রামের প্রভাবশালী মোশারফ হোসেন ফিসারী করার জন্য সরকারী কালভার্টের মুখে বাঁধ দিয়ে জলধারা সৃষ্টি করে আবাদ যোগ্য প্রায় ১০০ একর জমির ফসল বিনষ্ট করে আসছিলেন। সমস্যা সমাধানের জন্য স্থানীয় ভোক্তভুগীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১৫/০৭/২০২০ইং তারিখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তিনি ঘটনার সত্যতা দেখতে পান এবং ফিসারী মালিককে বাঁধ কেঁটে ৩ দিনের মধ্যে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশ অমান্য করায় আদালতের মাধ্যমে এ রায় প্রদান করা হয়।

অপরদিকে বিকেলে রোডের উপর সিএনজি ষ্টেশন স্থাপন করে যানজট তৈরি করে করোনা সংক্রমনের সম্ভাবনা সৃষ্টি করার অপরাধে ঐ ভ্রাম্যমান আদালত ষ্টেশন মাষ্টর মোঃ আঃ বারেককে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে আদালতে প্রেরণ করেছেন।