নিহতের পরিবারকে সেনা প্রধানের সহায়তা

প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২২

ফুলখড়ি ডেস্ক:

সেনাবাহিনীর গাড়ীর পিছনের চাকার নিচে কাঠ টুকরো পরে ছিটকে গিয়ে সাজেদা খাতুন (২৮) নিহত হয়। নিহতের পরিবারকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা, একটি বাছুরসহ গাভি দেওয়া হয়েছে। তাঁর দুই সন্তানকে আজীবন শিক্ষা সহায়তা প্রদান করবে বলে আশ্বস্ত করেছে সেনাবাহিনী।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে সাভার ক্যান্টনমেন্টের জি ও সি মেজর জেনারেল শাহীনুল হক নিহতের মেয়েদের হাতে সহায়তা হিসেবে বাছুরসহ ফ্রিজিয়াম জাতের দুগ্ধ গাভী প্রদান করেন। এর আগে উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে নিহতের পরিবারকে সমবেদনাজ্ঞাপন করে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সেই সাথে নিহতের দুই বাচ্চার আজীবন লেখাপড়ার দায়িত্ব নিয়েছেন। এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সাভার ক্যান্টনমেন্টের চীফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কর্ণেল মনিরুজ্জামান, ট্যাংক রেজিম্যান্ট কমান্ডিং অফিসার লে.কর্ণেল মাসুদ ,উপজেলা চেয়ারম্যান আঃ মালেক সরকার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল ছিদ্দিক, থানা অফিসার ইনচার্জ মোল্লা জাকির হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান শরাফ ্উদ্দিন শর ,ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন বাদল প্রমুখ।
গত সোমবার সকালে উপজেলার কালাকান্দা মিলের বাজার এলাকায় স্থানীয় কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে সাজেদা খাতুন (২৮) বাচ্চার জন্য ঔষধ নিয়ে বাড়ী ফেরার পথে সেনাবাহিনীর শীতকালীন মহড়ায় কামান বহনে নিয়োজিত গাড়ীর পিছনের চাকার নিচে কাঠ টুকরো পরে ছিটকে গিয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।