ফুলবাড়িয়ায় ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা

Jamal Jamal

Khan

প্রকাশিত: ১০:৪০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহে ফুলবাড়িয়া উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত ৪ জন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ৪ জন, স্বতন্ত্র ১ জন ও বিএনপি নেতা ২ জন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় তাঁদেরকে বেসরকারি ভাবে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত ঘোষণা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল ছিদ্দিক ও রিটার্নিং কর্মকর্তারা।
কুশমাইল ইউনিয়নের নিউগী কুশমাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ও আছিম-পাটুলী ইউনিয়নের জঙ্গলবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র স্থগিত করায় ঐ দুটি ইউনিয়নের ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি।

দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেট,পুলিশসহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য ভোট কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চেয়ারম্যান পদে ১ নং নাওগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মোজাম্মেল হক মোজা (আনারস) ৫৬৬৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত, প্রতিদ্বন্দ্বি আ’লীগের মো. আব্দুর রাজ্জাক (নৌকা) ৫৫৩৯ ভোট।২ নং পুটিজানা ইউনিয়নে সাইদুর রহমান রয়েল (আনারস) ৬৮০৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত, প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আ’লীগের মো. মেয়েজ উদ্দিন তরফদার (নৌকা) ৬৪৩২ ভোট। ৩ নং কুশমাইল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত আলহাজ্ব শামসুল হক ( নৌকা)৪৫২৩ ভোট পেয়েছেন, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী আঃ বাতিন পুলু (চশমা) ৬৩৬৮ ভোট পেয়েছেন ।
৪ নং বালিয়ান ইউনিয়নে বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান পলাশ (আনারস) ৯৩৮৭ ভোট ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি (স্বতন্ত্র) প্রার্থী শামীমা খাতুন ৭০৯১ ভোট ।

৫ নং দেওখোলা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত ( নৌকা) আলহাজ্ব তাজুল ইসলাম বাবলু ৫৬৮৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মো.জয়নাল আবেদিন (স্বতন্ত্র) প্রার্থী ৩৮০৩ ভোট।
৬ নং ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ( স্বতন্ত্র) প্রার্থী জয়নাল আবেদিন বাদল (চশমা)৮০৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীললীগ মনোনিত মো. রুহুল আমীন (নৌকা) ৫০৮১ ভোট পেয়েছেন।
৭ নং বাকতা ইউনিয়নে বিএনপি নেতা ফজলুল হক মাখন ( মটর সাইকেল) ৬৮৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী জাহাঙ্গীর আলম আকন্দ ৫০০৫ ভোট পেয়েছেন।

৮ নং রাঙ্গামাটিয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী রফিকুল ইসলাম মুক্তা চৌধুরী ৫৭০০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি (স্বতন্ত্র) প্রার্থী শাহজাহান সিরাজ ৩৭০৮ ভোট পেয়েছেন। ৯ নং এনায়েতপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত মো. বুলবুল হোসেন (নৌকা) ১৪০১২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি (স্বতন্ত্র) প্রার্থী মো. কবীর হোসেন তালুকদার ১৬০৪ ভোট পেয়েছেন।

১০ নং কালাদহ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মো. নজরুল ইসলাম মাস্টার
৫৬২৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগ মনোনিত ইমান আলী (নৌকা) পেয়েছে ৩৯৭৪ ভোট। ১১ নং রাধকানাই ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত গোলাম কিবরিয়া তরফদার, ( নৌকা) ১৩১৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি (স্বতন্ত্র) প্রার্থী মো. সারোয়ার আলম রোকন তরফদার পেয়েছেন ৯৪৪৫ ভোট।
১২ নং আছিম পাটুলী ইউনিয়নে যুবদল নেতা ইমরুল কায়েস ১০৬২৫ ভোট পেয়েছেন , আওয়ামীলীগ মনোনীত এস এম সাইফুজ্জামান (নৌকা) ৪১৩৬ ভোট পেয়েছেন ( ১ টি কেন্দ্রের বিষয়ে সিদ্ধান্ত অপেক্ষাধীন রয়েছে)। ১৩ নং, ভবানীপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত মো. জবান আলী সরকার নৌকা (৪৪৫০) ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীললীগের বিদ্রোহী মো. কামরুজ্জামান (আনারস) ৪১৬৩ ভোট পেয়েছেন।